‘অবন্ধুসুলভ‌’ দেশের তালিকা তৈরি করছে রাশিয়া

রাশিয়া খুব শিগগিরই ‌‘অবন্ধুসুলভ‌’ দেশগুলোর তালিকা তৈরি করবে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই ধরনের অবন্ধুসুলভ দেশগুলোর পরিচয় সুস্পষ্ট করার জন্য এবং তাদের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়ে একটি ডিক্রি জারি করার পর মস্কোর পক্ষ থেকে এই কথা জানানো হয়েছে।

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ গতকাল বুধবার স্পুৎনিক বার্তা সংস্থাকে বলেছেন, অবন্ধুসুলভ দেশের তালিকা তৈরি করার ব্যাপারে সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা রয়েছে এবং এ নিয়ে কোনো জটিলতা নেই। ফলে তালিকা তৈরির ব্যাপারে মস্কো দেরি করবে না।

গত শুক্রবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন অবন্ধুসুলভ দেশের তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়ে ডিক্রিতে সই করেন। এতে বলা হয়েছে, রাশিয়ায় অবস্থিত বিদেশী মিশনগুলোতে স্থানীয় যে সমস্ত লোকজন কাজ করছেন তাদের সংখ্যা কমাতে হবে। পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট পুতিন অবন্ধুসুলভ দেশগুলোর তালিকা দেয়ার কথা বলেন। এসব দেশের বিরুদ্ধে নানামুখী সীমাবদ্ধতা আরোপ করা হতে পারে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সরকারি দপ্তর ক্রেমলিনের ওয়েবসাইটে এরইমধ্যে এই আইনের কপি প্রকাশ করা হয়েছে। এতে মস্কোকে ক্ষমতা দেয়া হয়েছে যে, যেসব দেশ বা বৈদেশিক সরকারি প্রতিষ্ঠান রাশিয়ার সঙ্গে অবন্ধুসুলভ আচরণ করছে কিংবা রাশিয়ার স্বার্থের বিরুদ্ধে কাজ করছে সে সমস্ত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নিয়োগ চুক্তি সীমিতকরণ, এমনকি বাতিল করতে পারবে।

নানা বিষয়ে বিশেষ করে ইউক্রেন ও ক্রিমিয়া ইস্যুতে যখন পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে রাশিয়ার উত্তেজনা বেড়েই চলেছে এবং দুপক্ষ অনেকটা যুদ্ধের মুখোমুখি অবস্থান করছে তখন পুতিন ওই ডিক্রি জারি করেন।