অধিকতর জনগোষ্ঠিকে শিল্পখাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী

শিল্পোন্নত দেশ গড়তে শিল্পখাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির কোনো বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

তিনি বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সফলতাকে অর্জন করতে কর্মদক্ষতা উন্নয়নের ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে। শিল্পখাতের ক্রমবর্ধমান উন্নতি ও উৎপাদনশীলতা অর্জনে প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি ও দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টির মাধ্যমে অধিকতর জনগোষ্ঠিকে শিল্পখাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে হবে।

রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) শিল্প মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এবং প্রিজম প্রোগ্রামের টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স কম্পোনেন্টের সহযোগিতায় ভার্চুয়াল নতুন জাতীয় শিল্পনীতি-২০২১ প্রনয়ণের লক্ষ্যে অংশীজন পরামর্শক কর্মশালায় শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টে (বিআইএম) এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি অপরিহার্য পূর্ব শর্ত হচ্ছে পরিবেশবান্ধব শিল্পায়ন। সে লক্ষ্যে সরকার পরিবেশবান্ধব শিল্প কারখানা গড়ে তোলার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সফলতা অর্জনে সরকারি ও বেসরকারি সমন্বিত প্রচেষ্টায় শিল্পায়নের মাধ্যমে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও দেশে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি ও দক্ষতা বৃদ্ধি করাই নতুন জাতীয় শিল্পনীতি ২০২১ প্রণয়নের মূল উদ্দেশ্য। তথ্য-প্রযুক্তিনির্ভর চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সর্বোচ্চ সুফল অর্জন এবং দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য ও বেকারত্ব হ্রাস করাই এ নীতিমালার লক্ষ্য।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, নতুন জাতীয় শিল্পনীতি-২০২১ প্রণয়নে শ্রমিকদের স্বার্থ ও উদ্যোক্তা উন্নয়নের সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে।