আজ ববিতার জন্মদিন

আজ বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক সবস্থানে খ্যাতি কুড়ানো নায়িকা ববিতার জন্মদিন। দেশে করোনায় সার্বিক পরিস্থিতি, চলচ্চিত্রাঙ্গনের মন্দাবস্থা এবং নিজেকে সিনেমায় অভিনয় থেকে দূরে রাখা এসব মিলিয়েই যেন ববিতা এখন একটু চুপচাপ। জন্মদিনে নেই কোন পরিকল্পনা।

১৯৫৩ সালের আজকের এ দিনে তৎকালীন বাগেরহাট জেলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার বাবা নিজামুদ্দীন আতাউব ছিলেন একজন সরকারি কর্মকর্তা, মা বি জে আরা ছিলেন চিকিৎসক। ববিতার পৈতৃক বাড়ি যশোর জেলায় হলেও বাবার চাকরি সূত্রে বাগেরহাটেই থাকতেন তারা। তার শৈশব ও কৈশোরের শুরু সময়টা কেটেছে যশোর শহরে।

বড়বোন সুচন্দার অনুপ্রেরণায় চলচ্চিত্রে পা রাখেন ববিতা। ১৯৬৮ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে জহির রায়হান পরিচালিত ‘সংসার’ সিনেমার মাধ্যমে আত্নপ্রকাশ করেন তিনি।

চলচ্চিত্র জগতে তার প্রাথমিক নাম ছিলো ‘সুবর্ণা’। জহির রায়হানের ‘জ্বলতে সুরুজ কি নিচে’ সিনেমাতে অভিনয় করতে গিয়েই তার হয়ে যায় ‘ববিতা’। ১৯৬৯ সালেই নায়িকা হিসেবে আত্নপ্রকাশ করেন ববিতা।

জহির রায়হানের ‘টাকা আনা পাই’ সিনেমাটি ছিল তার টার্নিং পয়েন্ট। এরপর তিনি অভিনয় করেন নজরুল ইসলামের ‘স্বরলিপি’ সিনেমাতে। যা ওই সময় সুপারহিট হয়েছিল।

সত্যজিৎ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ সিনেমাতে আর্ন্তজাতিক অঙ্গনের নিজের অবস্থান তৈরি করেছেন ববিতা। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বিপরীতে ‘অনঙ্গ’ বউ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এই নায়িকা। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুবাদে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ববিতার এক বিশাল পরিচিত এবং গ্রহণযোগ্যতা গড়ে উঠে।

টানা তিনবছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে তিনি হ্যাট্রিক করেন। নায়িকা হিসেবে ববিতা প্রায় দেড় শত সিনেমাতে অভিনয় করেছেন।

ক্যারিয়ারের স্বীকৃতি স্বরূপ আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ছয়বার বাচসাস পুরস্কার এবং একাধিক আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন তিনি