Channel-5

ঢাবি ছাত্রীকে গণধর্ষণের আলামত মিলেছে


Published: 2020-01-06 19:26:43 BdST, Updated: 2020-01-29 11:08:17 BdST

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রীকে গণধর্ষণের আলামত মিলেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
ডা. সোহেল বলেন, নিপীড়নের শিকার ঢাবি ছাত্রীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। তার গলা চেপে ধরা হয়েছিল, গলায় ক্ষত আছে।

ডা. সোহেল মাহমুদ বলেন, তাকে ঝোঁপঝাড়ের ভেতরে ফেলার সময় ঝোঁপের গাছের খোঁচায় তার (ছাত্রীর) শরীরের বিভিন্ন জায়গা ছিলে যাওয়ার মতো হয়েছে।

তিনি বলেন, ঘটনার এক পর্যায়ে ভিকটিম জ্ঞান হারায়। জ্ঞান ফিরে এলে সে দেখে ধর্ষক সেখানে তখনও উপস্থিত। ধর্ষক পেছনে ফিরে মেয়েটির ব্যাগে কিছু একটা খোঁজাখুঁজি করছিল। সেই সুযোগে মেয়েটি সেখানে থেকে পালিয়ে আসে।

এর আগে সকালে কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে যাওয়ার পথে একটি ঝোপের মধ্য থেকে ভিকটিমের বই-ঘড়ি-ইনহেলার উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব সূত্র জানায়, ঝোপের মধ্য থেকে ইউনিভার্সিটির বই, চাবির রিং, ইনহেলার, ঘড়িসহ বেশ কিছু আলামত পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, যে স্থানে আলামতগুলো পাওয়া গেছে সেখানে মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, রোববার (৫ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৫টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে ওই ছাত্রী বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন। কুর্মিটোলা বাসস্টেশনে নামার পর তাকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি অনুসরণ করতে থাকে। মাঝপথে তাকে ধরে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে ঘটে। রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফেরে ওই ছাত্রীর। পরে তিনি রিকশায় করে বান্ধবীর বাসায় যান। সেখান থেকে বান্ধবীসহ অন্য সহপাঠীরা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

সোমবার সকালে ধর্ষণের ঘটনায় ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে ওই ছাত্রীর বাবা মামলা দায়ের করেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

চ্যানেল ফাইভ মিডিয়া


যোগাযোগ: নাগিনা ভবন,৩নং,মায়াকানন,সবুজবাগ,ঢাকা 01939317389 পরীক্ষামূলক সম্প্রচার

Developed by: EASTERN IT